‘ভোটারদের ভয় দেখাতে ঢালাওভাবে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে’

প্রকাশ : ৩০ এপ্রিল ২০১৮, ১৭:৪৩

জাগরণীয়া ডেস্ক

গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচন সামনে রেখে ভোটারদের ভয়-ভীতি দেখাতে বিরোধী নেতা-কর্মীদের ঢালাওভাবে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি’র জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

৩০ এপ্রিল (সোমবার) সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই অভিযোগ করেন।

রিজভী বলেন, দুই  সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিরোধী নেতাকর্মী ও সাধারণ ভোটারদের মাঝে ভীতি ছড়াতে ২৯ এপ্রিল (রবিবার) ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির নেতাদের আটক করা হয়েছে। গাজীপুরে বিএনপির প্রার্থীকে সমর্থন দেওয়ার পরই জামায়াতে ইসলামীর মেয়র প্রার্থীসহ ৪৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এটা কিসের আলামত নমুনা? ক্ষমতাসীনরা গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনী এলাকাকে শশ্মান ভূমি করতে চান। সেখানে শুধু আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসী ও তাদের সহযোগী আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বন্দুকের আওয়াজ থাকবে- এটাই তাদের পরিকল্পনা। এরকম পরিস্থিতিতে দুই সিটিতে নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ হবে না বলে আমাদের আশঙ্কা।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন কমিশনকে বলব, দুই সিটি নির্বাচন যেন রক্তাক্ত না হয় সেদিকে সর্তক ও তৎপর থাকতে হবে। সন্ত্রাসীদের প্রভাবমুক্ত রাখতে নির্বাচনে সেনাবাহিনীকে মোতায়েন করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি এম শামসুল হুদা, ইউনুস মৃধা, গোলাম হোসেন, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রশিদ হাবিব, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম পটু, রফিকুল ইসলাম রাসেলসহ দলের ২০ নেতাকর্মীকে আটকের নিন্দা ও অবিলম্বে তাদের মুক্তির দাবি জানান।

এ সময় খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সমালোচনা করেন রিজভী। একই সঙ্গে আবারও অসুস্থ খালেদা জিয়াকে ইউনাটেড হাসপাতালে নিয়ে সুচিকিৎসার দাবি জানান তিনি।

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য নজমুল হক নান্নু, আতাউর রহমান ঢালী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ দপ্তর সম্পাদক মুনির হোসেন ও শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম খান নাসিম সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত