যুক্তরাষ্ট্র থেকে অনেক পর্যবেক্ষক আসবেন: এইচ টি ইমাম

প্রকাশ : ২৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:০০

যুক্তরাষ্ট্র থেকে অনেক পর্যবেক্ষক আসবেন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বলেছেন, আমরা বলেছি পর্যবেক্ষকরা যেখানে যাবেন তাদের নিরাপত্তা বিধান করা আমাদের দায়িত্ব। আমরা তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য তালিকা চেয়েছি। তারা আগে থেকে তালিকা দিয়ে জানাবেন, কোথায় কি কি কাজ করবেন।

বুধবার (২৮ নভেম্বর) ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপ শেষে তিনি এ কথা জানান।

এইচ টি ইমাম বলেন, মার্কিন দূতাবাসের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আমাদের বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আনন্দের খবর এই যে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আদর্শ অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন, এই আদর্শ মার্কিনিরাও ধারণ করে। তাদের সঙ্গে আমাদের মতের যথেষ্ট মিল আছে। এজন্যই তারা আমাদের এখানে এসেছেন। এটাই প্রথম নয়, এর আগেও ব্রিটিশ হাইকমিশনার এলিসন ব্লেক এসেছিলেন। ব্যক্তিগতভাবে আমাদের সঙ্গে সব দেশের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে যোগাযোগ আছে। কিন্তু আমরা সব প্রচার করা জরুরি মনে করি না।

তিনি আরও বলেন, আমি মার্কিন কর্মকর্তাদের জানিয়েছি, স্বাধীনতার পর থেকে ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু আরপিও তৈরি করেছিলেন। সেই আরপিও এর উপর ভিত্তি করে নির্বাচন হয়ে এসেছে। আর সেই আরপিওতে যত ধরণের সংশোধনী এসেছে, সব একমাত্র আওয়ামী লীগ করেছে। এটি আর কেউ করেনি।

এইচ টি ইমাম আরও বলেন, তারা বলেছে বাংলাদেশে এখন ভালো পরিবেশ বিরাজ করছে। এর আগে তাদের থিংক ট্যাংক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান আছে। তাদের একটি অক্টোবর মাসে এসেছিলেন, আমার সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা বলেছিলেন একটা ডায়ালগ দরকার। আমাদের সংলাপ আয়োজনে তারাও খুশি বলে জানিয়েছে। এই ডায়ালগে আমাদের সভাপতি সবাইকে যেভাবে নিয়ে এসেছেন তাও আমরা উল্লেখ করেছি।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন পর্যবেক্ষক পাঠাবে না, কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র পাঠাচ্ছে এতে কি তাদের কাছে নির্বাচনি পরিবেশ নিয়ে কোনও সংশয় আছে? এমন প্রশ্নের জবাবে এইচ টি ইমাম বলেন, নির্বাচনের খুব ভালো পরিবেশ আছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের পার্লামেন্টে সিদ্ধান্ত হয়েছে যে বাংলাদেশে এখন আদর্শ পরিবেশ বিরাজ করছে, এখানে পর্যবেক্ষক পাঠানোর কোনও দরকার নেই। মার্কিন পর্যবেক্ষকরা দেখবে নির্বাচন কেমন হয়। মার্কিন আর ইউরোপের সিস্টেম তো এক না। তবে একটা জিনিস আমরা বলে দিয়েছি পর্যববেক্ষক যারা আসবে তাদের অবশ্যই নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত হতে হবে। নির্বাচন কমিশনের কোড অব কন্ডাক্ট আছে দেশি এবিং বিদেশিদের জন্য। সেটা তাদেরকে জানিয়েছি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত