গাজীপুর সিটি নির্বাচন

গাজীপুরের এসপিকে প্রত্যাহার চায় বিএনপি

প্রকাশ : ৩০ এপ্রিল ২০১৮, ১৪:১৬

জাগরণীয়া ডেস্ক

নির্বাচনের পরিবেশ শান্তিপূর্ণ রাখতে গাজীপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) হারুনুর রশীদকে প্রত্যাহার এবং দুই সিটিতে সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়েছে বিএনপি। রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ২৯ এপ্রিল (রবিবার) আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এ দাবি জানান। 

তিনি বলেন, গাজীপুর ও খুলনা সিটিতে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করতে ব্যর্থ হয়েছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন করতে যে পরিবেশ সৃষ্টি হওয়া দরকার, তা এখনো করতে পারেনি তারা। তার অভিযোগ- নির্বাচনী প্রচার শুরু হলেও দুই সিটিতে ক্ষমতাসীনদের বৈধ ও অবৈধ অস্ত্রের ছড়াছড়ি। বিভিন্ন এলাকায় দাবড়িয়ে বেড়াচ্ছে সন্ত্রাসীরা। 

রিজভী বলেন, দুই সিটিতে আওয়ামী লীগের দুই প্রার্থীর বিরুদ্ধে কালো টাকার ছড়ানো এবং প্রতিনিয়ত আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ ইসিতে জমা দিলেও নির্বাচন কমিশন অন্ধের ভূমিকা পালন করছে। শনিবার গাজীপুরের মৌচাকে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে এক নির্বাচনী যৌথসভায় যেভাবে মন্ত্রী-এমপিরা আওয়ামী লীগ প্রার্থী জাহাঙ্গীরকে বিজয়ী করতে আহ্বান জানান, তা সুস্পষ্টভাবে নির্বাচনী আচরণবিধির লঙ্ঘন। 

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, গাজীপুরের পুলিশ সঠিক আচরণ করছে না। তারা এখন ভয়ংকর আতঙ্কের নাম। আর এই আতঙ্কের মহানায়ক হচ্ছেন এসপি হারুন। তার দাপটে গাজীপুরে সাধারণ নিরীহ মানুষ এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে যেতে বাধ্য হচ্ছেন। বিরোধী দলের তরুণ কর্মীরা কেউ গাজীপুরে অবস্থান করতে পারেন না। এ কারণে অবিলম্বে এসপি হারুনের প্রত্যাহার দাবি করছি। 

রিজভী বলেন, দলীয়করণের মাধ্যমে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আওয়ামী লীগ যেভাবে নষ্ট করে ফেলছে, তাতে তাদের মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। সমাজের বিশিষ্ট নাগরিকরাও একই অভিমত দিয়েছেন। তাই নির্বাচনের সাত দিন আগে দুই সিটিতে সেনা মোতায়েনের জোর দাবি জানাচ্ছি।

সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, কেন্দ্রীয় নেতা শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: সমকাল

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত